May ২০১৯
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Jan    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Free counters!

ডার্করুম এর প্রচার সময় পরিবর্তন

camera

দর্শকদের অব্যাহত দাবীর মূখে এটিএন নিউজে প্রচারিত ফটোগ্রাফী বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘ডার্করুম’ এর নতুন প্রচার সময় যোগ করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতি বৃহস্পতিবার বিকাল ৫:১৫ মিনিটে ‘ডার্করুম’ সরাসরি প্রচার করা করা হবে। এ সময় ষ্টুডিও’তে ফোন করে অথবা ফেসবুক পেজে অনুষ্ঠানে উপস্থিত গেষ্ট’কে প্রশ্ন করা যাবে। ‘ডার্করুম’ বৃহস্পতিবার রাত ১:১৫ মিনিটে এবং শুক্রবার বেলা ১:১৫ মিনিটে পূনঃ প্রচারিত হবে।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করে থাকেন বিশিষ্ট ফটোগ্রাফার প্রীত রেজা।

ডার্করুম এর ফেসবুক পেজ

ফটোগ্রাফী বিষয়ক বাংলা বই

camera

যারা ফটোগ্রাফী বিষয়ক বাংলা বই সংগ্রহ করতে আগ্রহী তাদের জন্য

ক্রম বই এর নাম লেখকের নাম মূল্য ০০১ আধূনিক ফটোগ্রাফি মনজুর আলম বেগ ৳ ১০০.০০ ০০২ দি বেসিকস অফ ফটোগ্রাফি মোঃ রফিকুল ইসলাম ৳ ২৫০.০০ ০০৩ ফটোগ্রাফি কলাকৌশল ও মনন মোঃ রফিকুল ইসলাম ৳ ৭২০.০০ ০০৪ ক্যামেরা কৌশল মুহাম্মদ হুমায়ূন কবির ৳ ১৮০.০০ ০০৫ ডিজিটাল ফটোগ্রাফি মাহবুবুর রহমান ৳ ১৮০.০০ ০০৬ ফটোগ্রাফির টুকিটাকি তৌহিদুন নবী ৳ ৭০.০০ ০০৭ ছবি : আলোর ভাষা আজিজুর রহীম পিউ ৳ ৪০০.০০ ০০৮ ফটোগ্রাফি শিক্ষা ও প্রযুক্তি মাসুদ-উর-রহমান ৳ ৪০০.০০ ০০৯ ডিজিটাল

বিস্তারিত …

প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফী

camera

হরদম বৃষ্টি হচ্ছে। নিতান্ত প্রয়োজন না পড়লে কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছে না। ঘরে বসে আর কি করবেন ? চলেন কিছু প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফী করা যাক। না, এটার জন্য কোন বড় ষ্টুডিও দরকার নেই। দরকার নেই খূব দামী কিছু সেটআপ। ঘরেই আছে এমন কিছু দিয়েই আপনি যে কোন প্রোডাক্টের ছবি তুলতে পারেন। কেবল দরকার একটু ধৈর্য্য। এর জন্য দরকার হবে একটা টেবিল, না পেলে একটা চেয়ারই যথেষ্ঠ। একটা শক্ত কার্ডবোর্ড (ফেলে দেয়া যে কোন কার্টুন বা বক্স হতে পারে, আমি আমার স্ক্যানারের বক্সটা কেটে ব্যবহার করেছি), কিছু

বিস্তারিত …

ক্লিনিং কিট

camera

বাজারে নানা ধরেণের ক্লিনিং কিট পাওয়া যায়। দাম মোটামুটি ৫০০ টাকা থেকে শুরু। ইচ্ছে করলে আপনি প্রতিটি আইটেম আলাদা ভাবেও ক্রয় করতে পারেন। যেন এয়ার ব্লোয়ার, ক্লিনিং ক্লথ, লেন্স ক্লিনিং পেপার ইত্যাদি। আপনার ক্যামেরা এবং লেন্স ক্লিন করার জন্য আপনার যা যা প্রয়োজন …

১. এয়ার ব্লোয়ার : এই এয়ার ব্লোয়ার দিয়ে আপনি ক্যামেরা এবং লেন্সের উপরের আলগা ধূলা পরিস্কার করতে পারবেন। সেই সাথে সেন্সরের ধূলাও এটি দিয়ে পরিস্কার করা যাবে। ২. ব্রাশ : ব্রাশ দিয়ে ক্যামেরা এবং লেন্সের উপরের ধূলা আলতো করে ঝেড়ে ফেলতে হয়। ৩.

বিস্তারিত …

কি ভাবে করবেন – সেন্সর পরিস্কার

camera

কথায় বলে বউ মরলে আরেকটা বউ পাওয়া যায়, কিন্তু ভাই মরলে আরেকটা ভাই কিভাবে পাবেন। কথাটা শুনে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। তবে আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় ডিএসএলআর ক্যামেরার সবচাইতে মূল্যবান যন্ত্রাংশ কোনটি তাহলে কি বলবেন – লেন্স নাকি সেন্সর ? লেন্স নষ্ট হলে আপনি আরেকটা লেন্স কিনে আনতে পারেন, কিন্তু সেন্সর নষ্ট হলে কিন্তু আপনার ক্যামেরাটাই বাতিল। এহেন একটা যন্ত্রাংশ যা কিনা বেশ সংবেদনশীল, তার যত্ন নেয়াটা অবশ্যই গুরুত্বের দাবী করে। যত্ন বলতে এতে যেন অবাঞ্চিত ধূলো ময়লা জমতে না পারে সেদিকে একটু খেয়াল রাখা।

বিস্তারিত …

আর্দ্রতা থেকে ক্যামেরা / লেন্স সুরক্ষা

camera

আমাদের দেশে ক্যামেরা এবং লেন্সের বড় শত্রু বাতাসের আর্দ্রতা এবং ধূলোবালি। শীতকালে ধূলোবালি বেশী থাকে আর বর্ষাকালে আর্দ্রতা। ধূলোবালি থেকে ক্যামেরা এবং আনুসঙ্গিক যন্ত্রপাতি রক্ষা করা এবং পরিস্কার করা অপেক্ষাকৃত সহজ হলেও বর্ষাকালে অতিরিক্ত আর্দ্রতা থেকে ক্যামেরা এবং লেন্স রক্ষা করতে হলে একটু বেশী যত্ন নিতে হয়। ধূলোবালি চোখে দেখা গেলেও জলীয় বাস্প কিন্তু আপনি চোখে দেখছেন না। ফলে আর্দ্রতার প্রভাবে লেন্সে শেষ পর্যন্ত ফাঙ্গাস পড়লে আপনি টের পাবেন কি ক্ষতিটা আসলে হয়েছে।

যেসব দোকানে বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি বিক্রি করে, সেখানে ডেসিকেটর (বা ডেসিকেটিং বক্স) বলে

বিস্তারিত …

ক্যামেরা শেক আর ঝাপসা ছবি

camera

বন্ধুদের সাথে হয়তো বেড়াতে গেছেন অথবা গেছেন পারিবারিক কোন অনুষ্ঠানে। ছবি তুলেছেন বিস্তর। ক্যামেরার পিছনের ছোট্ট মনিটরে ভালই লাগছিলো ছবিগুলো দেখতে আর দেখাতে। গোল বাঁধলো বাসায় এসে কম্পিউটার মনিটরে দেখার সময়। কেমন যেন ঝাপসা দেখাচ্ছে সব ছবিগুলো। পাঠক, এরকম অভিজ্ঞতা আমার আপনার সবারই হয়েছে ছবি তুলতে যেয়ে। এটা হয় সাধারণত আমাদের হাত কাঁপার কারণে। যদিও ক্যামেরা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলির এন্টি শেক প্রযুক্তি দিনে দিনে উন্নতি করছে, তবুও ক্যামেরা শেক এর কারণে ছবি ব্লার হয়ে যাওয়া কিন্তু একেবারে বন্ধ হচ্ছেনা। তবে একটু চেষ্টা করলে আমরা নিজেরাই কিন্তু এরকম

বিস্তারিত …

সেল্ফ পোর্ট্রেট

camera

অনেক সময়ই নিজের ছবি নিজেকেই তুলতে হয়। হয়তো আশে-পাশে ভাই-বোন-বন্ধু তেমন কেউ ই নেই যে আপনাকে একটু সাহায্য করতে পারে। একেবারে নির্বান্ধব অবস্থায় নিজের ছবি তোলাটা এমন কঠিন কিছু না। এর জন্য আপনার দরকার হবে একটা ট্রাইপড, একটা ষ্ট্যান্ড, একটা ফোকাস টার্গেট – ব্যস এই কয়টা জিনিস হলেই আপনি আপনার নিজের পোর্টেট ছবি নিজেই তুলে ফেলতে পারবেন। ‘ফোকাস টার্গেট’ জিনিসটা শুনতে ভারিক্কি লাগলেও জিনিসটা একটা ইমেজ। প্রথমে এরকম একটা ফোকাস টার্গেট প্রিন্ট করে নিন। এই পোষ্টের সাথে যে ইমেজটা দেয়া হলো সেটাই আপনি A4 পেপারে

বিস্তারিত …

স্বল্পালোকে বন্যপ্রাণী’র ছবি তোলা

camera

সৌম্য কয়েকদিন আগে জানতে চেয়েছিলো সন্ধ্যার ঠিক আগে পাখির ছবি কিভাবে তুলবে। তার সব ছবিই নাকি ব্লার হয়ে যায়। আমার এবিষয়ে অভিজ্ঞতা একেবারেই নাই বললেই চলে। আমি উত্তর দিয়েছিলাম কমন সেন্স থেকে। আজ হঠাৎ করেই এরকম একটা আর্টিকেল পেলাম। এই পোষ্ট সেই আর্টিকেলেরই ভাবানুবাদ

১. আইএসও বাড়িয়ে নিন – তাই বলে একবারেই একেবারে উচুতে তুলবেন না। দরকার হলে 100-200, 200-400 এভাবে বাড়ান আর কয়েকটা টেষ্ট শট নিয়ে দেখুন আপনার ছবিতে গ্রেইন/নয়েজ কেমন আসছে। প্রয়োজন বোধে এলসিডি’তে জুম করে দেখতে পারেন পরিস্থিতি কেমন।

বিস্তারিত …

ফিল্টার কথন

camera

একটা সময় ছিলো যখন ফটোগ্রাফাররা নানা ধরণের ফিল্টার সংগ্রহ করতেন আর ছবি তোলার সময় ব্যাগ ভর্তি করে সেসব নিয়ে যেতেন। আমি ফিল্ম ক্যামেরার কথা বলছি। এখনও যারা এই ক্যামেরা ব্যবহার করছেন তাদের অবশ্যই নানা ধরণের ফিল্টার রাখতে হয় – কালার কারেকশন ফিল্টার, সেপিয়া বা ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট ফিল্টার, ওয়ারমিং এবং কুলিং ফিল্টার – এরকম নানা ফিল্টার। ডিএসএলআর এর যুগে ফিল্টার আর তেমনভাবে দরকার হয় না। ক্যামেরার ফিচার ব্যবহার করেই আপনি এখন ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট বা সেপিয়া কালারের ছবি পেতে পারেন। আর ছবি তোলার পর পোষ্ট

বিস্তারিত …